All The President’s Men(1976)

All The President’s Men(1976) মুভি রিভিউ

আজকে অসাধারন একটি মুভি রিভিউ নিয়ে হাজির হয়েছি। আশা করি রিভিউ টি আপনাদের কাছে ভালো লাগবে। আজকের রিভিউটি পড়ুন এবং প্রতিদিন নতুন নতুন রিভিউ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

All The President’s Men(1976) মুভি রিভিউ

Imdb: 7.9
Genere: Biography, Drama, History
কাস্টঃ ডাস্টিন হফম্যান, রবার্ট রেডফোর্ড, জ্যাক ওয়ার্ডেন…
ডিরেক্টরঃ অ্যালান জে. প্যাকুলা

স্টোরিঃ Based on the true story written by “The Washington Post” reporters Bob Woodward and Carl Bernstein uncover the details of the Watergate scandal that leads to president Richard Nixon’s resignations.

আসেন একটু ইতিহাস জেনে নেইঃ

সময়টা ১৯৭২ সাল, যেটি ছিলো যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক ইতিহাসের একটি ন্যাক্কারজনক এক অধ্যায়। তৎকালীন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সন ২য় দফায় নির্বাচনী প্রচারনা চালাচ্ছেন। সেসময় বিরোধী ডেমক্রেট দলের ওয়াটারগেট অফিসে ৫ জন লোক ধরা পডে যারা সেখানে আড়ি পাতার যন্ত্র বসানোর চেষ্টা করছিলো। প্রেসিডেন্ট নিক্সন ব্যাপারটিকে ভালভাবেই ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে।

কাহিনী যদি এখানে শেষ হতো তাহলে তেমন কিছুই হতো না। কিন্তু কাহিনী এখানে শেষ নয়।
ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার দুজন সাংবাদিক বব উডওয়ার্ড এবং কার্ল বার্নস্টেইন ঘটনাটি নিয়ে ঘাটাঘাটি করে দেখতে পায় যে ধরা পড়া ৫ জন ব্যাক্তিই নিক্সন প্রশাসনের লোক। এই খবর প্রকাশিত হবার পর দেশ জুড়ে আলড়োন সৃষ্টি হয়। এফবিআই তদন্ত করে করে দেখতে পায় যে নিক্সন নির্দেশেই এই আড়ি পাতার কান্ড আরো বহু আগে থেকেই চলছে। প্রমাণ সরুপ তারা প্রেসিডেন্ট নিক্সনের কাছে কিছু টেপ রেকর্ডার পায় যেখানে ডেমক্রেটদের বিভিন্ন কথা রেকর্ড ছিলো। হাতেনাতে ধরা পড়ে গেলে নিক্সন। প্রমাণিত হয় আটকৃত ৫ জন ব্যাক্তির সবাই প্রেসিডেন্টের লোক এবং তাদেরকে নিক্সনের নির্বাচনী প্রচারনা তহবিল থেকে অর্থ দেওয়া হয়েছিলো।

১৯৭৪ সাল, নিম্নকক্ষে অভিসংশিত হন নিক্সন, সিনেটে নিক্সনের অভিসংশন প্রক্রিয়া শুরু করেছেন সিনেটররা। কাহিনী আঁচ করতে পেরেই যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে পদত্যাগ করেন নিক্সন।

প্লটঃ

মূলত এই সিনেমাকে আপনি চাইলে ডকুমেন্টারিও বলতে পারেন কারন মুভিতে দেখানো প্রতিটি সেকেন্ডই বাস্তব। স্টোরি লিখেছেন ওয়াশিংটন পোস্টের সেই সাংবাদিক বব উডওয়ার্ড এবং কার্ল বার্নস্টেইন দুজনেই। এর উপর ভিত্তি করেই ১৯৭৬ সালে সিনেমাটি বানানো হয়। কিভাবে তারা দুজন তথ্য উদঘাটন করেছে যে এরা ৫ জনই প্রেসিডেন্টের লোক এবং বার্নস্টেইন এই তথ্য সংবাদমাধ্যমে ফাঁস করে দেওয়া, ফলশ্রুতিতে নিক্সনের পদত্যাগ এসবই দেখানো হয়েছে মুভিতে।
যারা গরীব মুভিলাভার, মানে শুধুমাত্র বিনোদন এর জন্য মুভি দেখেন তাদের জন্য আমার সাজেশন মুভিটি না দেখায় উত্তম। আর যারা ধনী মুভিলাভার, আই মিন, মুভি দেখার পাশাপাশি যাদের জানার আগ্রহ আছে, যারা জানতে চান, শিখতে চান তারা দেখতে পারেন।
২০১০ সালে এই মুভিকে যুক্তরাষ্ট্রের লাইব্রেরী অভ কংগ্রেস তাদের ইতিহাস ও ঐতিয্যের জন্য গুরত্ত্বপূর্ণ বিবেচনা করে জাতীয় চলচ্চিত্র রেজিস্ট্রিতে সংরক্ষনের জন্য অনুমোদন করে।
সিনেমাটি ৮ টি বিভাগে অস্কার নমিনেশন, ৪ টি বিভাগে গোল্ডেন গ্লোভ নমিনেশন এবং ১০ টি বিভাগে বাফটা নমিনেশন লাভ করে।
৮.৫ মিলিয়ন ডলার বাজেটের সিনেমাটি আয় করে ৭০.৬ মিলিয়ন ডলার।

আশা করি আপনারা এই রিভিউটি পছম্দ করবেন। যদি পছম্দ করে থাকেন তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন।

About the Author: Amar Subtitle

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *